২০ মে ২০২৪

উখিয়ায় ভাড়া বাসা থেকে এনজিও কর্মীর মরদেহ উদ্ধার

কক্সবাজারের উখিয়ায় ভাড়া বাসা হতে এক এনজিও কর্মীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (১৫ মে) রাত সাড়ে ১০টায় উপজেলার রত্নাপালং ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের পশ্চিমরত্না ঝাউতলা এলাকার এক ভাড়া বাসা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মৃত এনজিও কর্মী আবদুল্লাহ আল মাসুদ (২৩) কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার বড় মহেশখালীর ফকিরাঘোনা এলাকার মো. শফির ছেলে। তিনি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সেবারত ‘এনআরসি’ এনজিওর শিক্ষা প্রকল্পে শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রতিদিন অফিস শেষে সন্ধ্যা হলে তার বাসার সামনের লাইট জ্বালিয়ে দিতো এবং বাসার পাশের একটি নলকূপ থেকে পানি নিতে আসতেন তিনি। কিন্তু বুধবার সন্ধ্যায় তার বাসার সামনে অন্ধকার থাকলে বাড়ির মালিক তার দরজায় কড়া নাড়েন। কিন্তু কোনো সাড়াশব্দ না পাওয়ায় জানালা দিয়ে উঁকি দিতেই চেয়ার উপর তাকে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেন। অবস্থা দেখে মনে হচ্ছে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

মাইকেল নামের এক যুবক জানান, এনজিওর চাকরি এবং আমার বাড়ির সামনের বাসায় থাকার সুবাধে মাসুদের সাথে আমার দীর্ঘদিনের পরিচয়। তিনি নতুন এই বাসায় উঠেছে কয়েকমাস হবে। তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে মনে হচ্ছে। তবে কি কারণে মাসুদ আত্মহত্যা করেছেন তা বুঝতে পারছি না।

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শামীম হোসেন জানান, খবর পেয়ে আমরা মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসি। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। সুরতহাল রিপোর্ট দেখে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে আত্মহত্যা। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে জানা যাবে।

আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও

সর্বশেষ