১৩ জুলাই ২০২৪

কাশির সিরাপে নেশা দ্রব্য মিশিয়ে সেবন, দুজনের মৃত্যু

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে কাশির সিরাপের সঙ্গে নেশা দ্রব্য মিশিয়ে সেবন করায় সবজি বিক্রেতাসহ দুজনের মৃত্যু হয়েছে।

রোববার (২৩ জুন) ভোরে হাটহাজারী পৌরসভার পশ্চিমে আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের (কৃষি ফার্ম) পাশ থেকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করা হয় তাদের। পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুইজনকেই মৃত ঘোষণা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাটহাজারী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রহমত উল্লাহ।

মৃতরা হলেন, হাটহাজারী বাজারের সবজি বিক্রেতা মো. রাসেল (১৮) ও সবজির দোকানের কর্মচারী মো. শাকিল (১৪)। সবজি বিক্রেতা মো. রাসেল পৌর এলাকার ১নং ওয়ার্ড দেওয়ান নগর এলাকার হামিদ আলী তালুকদার বাড়ির আব্দুস শক্কুরের ছেলে এবং তার দোকানের কর্মচারী মো. শাকিল একই এলাকার সিদ্দিক আহমেদ বাড়ির মৃত ইলিয়াসের ছেলে।

নিহত রাসেলের ভগ্নীপতি মো. হাবিব জানান, দুইজন শনিবার রাতে স্থানীয় একটি ফার্মেসি থেকে কাশির সিরাপ নিয়ে ঘটনাস্থলে যায়। কাশির সিরাপের সঙ্গে নেশা জাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে তারা সেবন করে। অতিরিক্ত সেবন করার কারণে তারা গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। ভোরে দুইজনকে হাটহাজারী আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের এক আনসার সদস্য দেখতে পেয়ে তাদের পরিবারের সদস্যদের খবর দেন। এরপর তাদের মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের শারীরিক অবস্থা গুরুতর হওয়ায় দ্রুত চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করে। সেখানে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে হাটহাজারী হাটহাজারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মনিরুজ্জামান জানান, নিহতদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য চমেক হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় পৃথক দুইটি অপমৃত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়া সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন