২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

‘কেন এমন হলো আল্লাহ, আমার জামাই কই’

বাংলাধারা প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ইমার্জেন্সি সেন্টারের সামনে বিলাপ করে কাঁদছিলেন নববিবাহিতা সানজিদা। শোকে মাতম করতে করতে রক্তমাখা হাতে চিৎকার করে শুধু বলছিলেন, ‌‘কেন এমন হলো আল্লাহ! আমার জামাই কই?’ সানজিদার এমন মাতমে ভারী হয়ে ওঠে চমেক হাসপাতালের আকাশ-বাতাস। স্তব্ধ হয়ে তার দিকে বোবা দৃষ্টিতে চেয়ে ছিলেন হাসপাতালে আসা রোগী-স্বজনরা।

কান্না-চিৎকারে সানজিদা সূচির কণ্ঠ শুকিয়ে কাঠ হলেও কোন সাড়া-শব্দ ছিলোনা সানজিদার স্বামী রায়হান নওশাতের। কেননা ততক্ষণে সড়ক কেড়ে নিয়েছে সানজিদার সাথে দুদিন আগে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়া নওশাতের তরতাজা প্রাণ। রোববার সন্ধায় মোটরসাইকেল যোগে সহকর্মীকে নিয়ে কর্মস্থল থেকে বাসায় ফেরার পথে ডিসি পার্ক অতিক্রম করার সময় থেমে থাকা একটি লরির পেছনে ধাক্কা লেগে নিভে যায় নওশাতের জীবন প্রদীপ।

নিহত রায়হান নওশাত হাটহাজারী উপজেলার পাটোয়া গ্রামের হাজি নাজির ফকির বাড়ির মৃত নাজিম উদ্দিনের ছেলে। তিনি নগরীর কাটগড় এলাকার এসএপিএল কন্টেনার ডিপোতে চাকরি করতেন। এর আগে নওশাত পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগ থেকে প্রথম ব্যাচে স্নাতক (সম্মান) ডিগ্রি অর্জন করেন।

এদিকে রায়হানের অকাল মৃত্যুতে পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সকল শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সংবাদকর্মী, শিক্ষক, আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধুমহলে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। রায়হানকে নিয়ে ফেসবুকে স্মৃতিচারণও করেছেন অনেকে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে রায়হানের ‘আব্বাস হোসেন’ নামে এক বন্ধু লিখেছেন, ‘গত শুক্রবার আকদ করেছে, ভাগ্যের কি নির্মম পরিহাস গতকাল সে বাইক এক্সিডেন্টে মারা গেছে, খবর পেয়ে হসপাতালে গিয়ে দেখি ভাই, বন্ধু, আত্মীয়-স্বজনের কান্নায় পুরো হসপিটাল ভারী হয়ে পড়ছে, রক্ত মাখা কাপড় গায়ে মেখে তার নতুন বউয়ের কান্নার আহাজারির সান্তনা কিভাবে দিবে কেউ জানেনা।

উল্লেখ্য, গতকাল রোববার সন্ধায় মোটরসাইকেল যোগে সহকর্মীকে নিয়ে কর্মস্থল থেকে বাসায় ফেরার পথে ডিসি পার্ক এলাকায় দুর্ঘটনার শিকার হয় নওশাতসহ তার দুই বন্ধু। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আজ সোমবার সকাল ১১টায় নওশাতের গ্রামের বাড়িতে তার মরদেহ জানাজা শেষে দাফন করা হয়েছে।

বিডি/প্রিন্স

আরও পড়ুন