১৫ জুলাই ২০২৪

চট্টগ্রাম নগরীতে মেট্রোরেলের সম্ভাব্যতা নিয়ে সিডিএ’তে কইকা’র বিশেষ টিম

চট্টগ্রামকে বাসযোগ্য করতে শত বছরের পরিকল্পনা চায় সিডিএ

চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ’র (সিডিএ) চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন কোরিয়ান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির (কইকা) বিশেষ টিম। সোমবার (৮ জুলাই) সকাল ১০টায় সিডিএ’র কার্যালয়ে এ সৌজন্য সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় সিডিএ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন মাস্টারপ্ল্যান প্রকল্প এবং কইকা’র অর্থায়নে ঢাকা ট্রান্সপোর্ট কো-অর্ডিনেশন অথরিটি (ডিটিসিএ) কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন মেট্রোরেল প্রকল্পের প্রাক সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের তথ্য ও মতামত প্রদান করা হয়।

এ বিষয়ে সিডিএ’র চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছ বলেন, আমাদের চট্টগ্রামকে পরিকল্পিতভাবে বসবাসযোগ্য করার লক্ষ্যে আগামী ৫০ থেকে ১০০ বছরের জন্য পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে। তাই মেট্রোরেল প্রকল্প নিয়ে শুধুমাত্র বর্তমান শহরকে নিয়ে ভাবলে হবে না, বৃহত্তর চট্টগ্রাম তথা দক্ষিণ চট্টগ্রাম ও উত্তর চট্টগ্রামের যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজতর করার বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে।

এজন্য তিনি মেট্রোরেলের পাশাপাশি সার্কুলার ট্রেনের ওপর গুরুত্বআরোপ করে বলেন, মেট্রোরেল প্রকল্প যদি আন্ডারগ্রাউন্ড হয় তবে পরিবেশগত দিক যেমন বন্যা, জলোচ্ছ্বাস ও পাহাড়ি ঢল হলে কিভাবে মিটিগেট করা হবে তা যেন পরিকল্পনায় থাকে।

এছাড়া প্রকল্পের কাজ সুষ্ঠুভাবে ত্বরান্বিত করার জন্য সিডিএ সর্বাত্মক সহযোগিতা করবেন বলে আশ্বস্ত করেছেন সিডিএ’র চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছ।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, চলমান মাস্টার প্ল্যান প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক এবং উপ-প্রধান শহর পরিকল্পনাবিদ মোহাম্মদ আবু ঈসা আনছারী ও নগর পরিকল্পনাবিদ জহির আহম্মেদ।

কোরিয়ান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির পক্ষে উপস্থিত ছিলেন এমআরটি প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মীর মোহাম্মদ কামরুল হাসান, ইয়োসিন ইঞ্জিনিয়ারিং কর্পোরেশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ইলহো চুং, জুনহেং জো ও সাঙ্গায়ো লি।

আরও পড়ুন