১৪ জুন ২০২৪

দুর্বল হয়েছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল

দেশের উপকূলীয় এলাকায় তাণ্ডব চালানোর পর ‘প্রবল ঘূর্ণিঝড়’ রেমাল দুর্বল হয়ে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে। এটি উত্তর ও উত্তর-পূর্বদিকে এগিয়ে আরও দুর্বল হয়ে যাবে। ভারতীয় আবহাওয়া অধিদপ্তর সোমবার (২৭ মে) সকালে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

সকালে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর সর্বশেষ জানিয়েছে, প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমাল উত্তর দিকে এগিয়ে উপকূল অতিক্রম করে বর্তমানে কয়রা, খুলনার কাছাকাছি অবস্থান করছে। এটি আরও উত্তর দিকে এগিয়ে ক্রমশ দুর্বল হয়ে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে।

ঘূর্ণিঝড়টি ক্রমে দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপ, নিম্নচাপ, সুস্পষ্ট লঘুচাপ ও লঘুচাপের পর নিঃশেষ হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরে ১০ নম্বর এবং চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার সমুদ্র বন্দরে ৯ নম্বর মহাবিপৎসংকেত এখনও বহাল রয়েছে বলে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে জানা গেছে।

রেমালের প্রভাবে সারাদেশে বৃষ্টি হচ্ছে। উপকূলীয় অঞ্চলে বইছে ঝড়ো হাওয়া। রাজধানীতেও বৃষ্টির সঙ্গে দমকা হাওয়া বইছে। রবিবার সারাদিনই বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

আবহাওয়া দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, ঘূর্ণিঝড়ের সর্বোচ্চ বাতাসের গতি রেকর্ড করা হয়েছে পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় ঘণ্টায় ১১১ কিলোমিটার।

রবিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় দেশের সর্বোচ্চ ১২৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

আরও পড়ুন