১৩ এপ্রিল ২০২৪

সাংবাদিক সম্মেলনে সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক মোঃ আবুল ফয়েজ

‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ টিকা মাধ্যমে ম্যালেরিয়া নির্মূল করতে সহায়ক হবে

পার্বত্যঞ্চলের প্রত্যন্ত এলাকায় পাহাড়ের কিংবা বন জঙ্গলের পাশাপাশি যারা বসবাস করে তারাই মশা কামড়ে ফলে বেশীর ভাগই ফ্যালসিপ্যারাম ম্যালেরিয়া রোগে আক্রান্ত হয়। ম্যালেরিয়া জীবাণুহীন মশা কামড় দেওয়া সাত থেকে ষোল দিন পর ম্যালেরিয়া উৎসর্গ দেখা দেয় । যার কারনে সময় মতো চিকিৎসা না নিলে ম্যালেরিয়া প্রাণঘাতীতে মৃত্যু হয়। তাই ম্যালেরিয়া রোগটিকে নির্মূল করার লক্ষ্যে যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় উদ্ভাবিত ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ নামে ম্যালেরিয়া টিকা উৎপাদন করেছে ভারতের সিয়াম ইনষ্টিটিউট। এতে করে ২০৩০ সালে বান্দরবানে ম্যালেরিয়া নির্মূল করতে সহায়ক হবে।

সোমবার বেলা দুইটায় বান্দরবানে সিভিল সার্জন কনফারেন্স সভা কক্ষে ম্যালেরিয়া নির্মূলে স্বাস্থ্য অবিহিতকরন বিষয়ক সাংবাদিক সম্মেলনের প্রধান অতিথি থেকে এসব কথা জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও প্রধান গবেষকের সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক মোঃ আবুল ফয়েজ।

অনুষ্ঠান আয়োজন করেন ডেভ কেয়ার ফাউন্ডেশনের ও সহযোগিতা ছিলেন বান্দরবান স্বাস্থ্য বিভাগ।

সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক মোঃ আবুল ফয়েজ বলেন, ম্যালেরিয়া নির্মূলের কর্মসূচী হিসেবে বান্দরবানের লামা ও আলীকদম এই দুই উপজেলায় একটি গবেষণামূলক পরিচালনা করা সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই উপজেলা গুলোতে ডেভ কেয়ার ফাউন্ডেশন ও অন্যান্য সংস্থা থাইল্যান্ডের মাহিদল ম্যালেরিয়া নির্মূলের টিকা ও ঔষধের কার্যকারিতা নির্ণয় করা হবে। তাছাড়া টিকা ও ঔষধের কার্যকারিতা নির্ণয়ের জন্য ম্যালেরিয়া সংক্রামক ১০০টি পাড়া কিংবা গ্রাম চিহ্নিত করা হয়েছে।সেসব গ্রামের সাধারণ মানুষের মাঝে ম্যালেরিয়া টিকা ও ঔষধ প্রদান করা হবে। পরবর্তিতে প্রতিজনের মাঝে টিকা যারা গ্রহন করবে তাদের সেবা চলমান থাকবে এবং ঔষধ সেবা ক্ষেত্রে একই ভাবে চলমান প্রক্রিয়া থাকবে। এতে করে আগামীতে ম্যালেরিয়া ঝুঁকি কমে আসবে বলে আশা ব্যক্ত করেন তিনি।

এসময় বান্দরবান সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে জেলা পরিবার পরিকল্পনার সহকারী উপ পরিচালক ডা অং চালু, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা: এম এম নয়ন সালাউদ্দিনসহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়াবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন