১৪ জুন ২০২৪

নাফ নদীতে চোরাকারবারির গুলিতে আহত বিজিবির ২ সদস্য

কক্সবাজারের টেকনাফের নাফনদীতে সশস্ত্র চোরাকারবারী দলের সদস্যদের গুলিতে বিজিবি দু’জন সদস্য আহত হয়েছেন। আহত বিজিবি সদস্যদের রামু সেনানিবাসের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

মঙ্গলবার (৪ জুন) রাত ১০টার দিকে টেকনাফের নাফনদীতে এ ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেন টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২বিজিবি) অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. মহিউদ্দিন আহমেদ।

তিনি জানান, মঙ্গলবার রাতে টেকনাফ ব্যাটালিয়নের (২ বিজিবি) অধীনস্থ নাজিরপাড়া বিওপি’র একটি চোরাচালান প্রতিরোধ নৌ টহলদল নাফ নদীতে নিয়মিত টহল কার্যক্রম চালায়। এ সময় রহমানের খাল নামক স্থানে নাফনদীতে বাংলাদেশের জলসীমায় বিজিবির সদস্যরা টহলরত থাকা অবস্থায় হঠাৎ একটি নৌকার মুখোমুখি হয়। ওই নৌকায় অবস্থানরত সশস্ত্র চোরাকারবারী দল বিজিবি টহল দলকে লক্ষ্য করে অতর্কিতভাবে গুলি বর্ষণ করতে থাকে।

এ ঘটনার প্রেক্ষিতে বিজিবি’র টহলদল সরকারী সম্পদ ও নিজেদের জানমাল রক্ষার্থে পাল্টা গুলি বর্ষণ করলে সশস্ত্র চোরাকারবারী দলের গুলিতে বিজিবি দুই সদস্য গুরুতর আহত হয়।

একপর্যায়ে বিজিবি’র টহলদলের প্রতিরোধের মুখে সশস্ত্র চোরাকারবারীরা ফায়ার করতে করতে রাতের অন্ধকারে নাফনদী দিয়ে মিয়ানমার সীমান্তের ভেতরে চলে যায়।

গুরুতর আহত বিজিবির দুই সদস্য সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল, রামু সেনানিবাসে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে উল্লেখ করেন ২ বিজিবি’র অধিনায়ক।

আরও পড়ুন