১৪ জুন ২০২৪

পাহাড়ে অপহরণ চক্রের প্রধান অস্ত্রসহ গ্রেফতার

কক্সবাজারের টেকনাফের বাহারছরা শীলখালী এলাকায় অভিযান চালিয়ে অর্ধডজনাধিক মামলার আসামী ডাকাত মোরশেদকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ। এসময় তার দেখানো মতে দুটি দেশীয় তৈরী অস্ত্র ও তাজা কার্তুজ জব্দ করা হয়েছে। রোববার (১৯ মে) রাতে শীলখালীতে এ অভিযান চালানো হয়।

গ্রেফতার মোরশেদ আলম (৩২) টেকনাফের বাহারছড়ার শীলখালী এলাকার মৃত নুরুল কবিরের ছেলে। তিনি মোরশেদ বাহিনীর প্রধান কুখ্যাত ডাকাত মোরশেদ বলেই পরিচিত।

বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক সামিউদ্দিন জানান, বেশ কিছু দিন ধরে টেকনাফ-উখিয়ার পাহাড়ি এলাকায় ডাকাতদল বেপরোয়া হয়ে অপরাধ কান্ড ঘটাচ্ছিল। তাদের রদ করতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উখিয়া সার্কেল রাসেলের দিক নির্দেশনা ও টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জের তত্তাবধানে আমার (তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ) নেতৃত্বে এসআই দস্তগীর হোসাইনসহ সঙ্গীয় অফিসার ফোর্সের সহায়তায় মোরশেদ বাহিনীর প্রধান মোরশেদকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। এসময় তার দেখানো মতে শীলখালী পাহাড়ের পাদদেশে তার ঘরে লোকানো অবস্থা হতে দুইটি দেশীয় তৈরী অস্ত্র ও এক রাউন্ড তাজা গুলি জব্দ করা হয়। গ্রেফতার মোরশেদের বিরুদ্ধে অস্ত্র, ডাকাতি, অপহরণসহ ৮ মামলা রয়েছে।

তিনি আরো জানান, পাহাড়ী বনে কাছে বাড়ি হওয়া সুবাধে এলাকায় মোরশেদ গড়ে তুলেছে এক বিশাল অপহরণ সিন্ডিকেট। ইতিমধ্যে তার নেতৃত্বে ১০ কৃষক ও ডাক্তার জহিরকে অপহরণ করে তুমুল আলোচনার সৃষ্টি হয় এলাকায়। আজকের অস্ত্র উদ্ধার ঘটনায় তার বিরুদ্ধে পৃথক মামলা হচ্ছে। তার সহযোগীদেরও গ্রেফতারে মাঠে কাজ করছে পুলিশ।

আরও পড়ুন