২৫ মে ২০২৪

ফটিকছড়িতে সাবানের কারখানায় অভিযান, জরিমানা

ফটিকছড়ির

চট্টগ্রামের ফটিকছড়ির ভূজপুরে হাজী এজাহার মিয়া সন্স এন্ড সোপ ফ্যাক্টরির (রাজা স্পেশাল বল সাবান) ফ্যাক্টরিতে অভিযান পরিচালনা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত

শুক্রবার (১০ মে) দুপুর ১টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত দীর্ঘ সময় ধরে চলা এ অভিযান পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মেজবাহ উদ্দিন। এ সময় বিএসটিআই চট্টগ্রামের ফিল্ড অফিসার মোহাম্মদ মাহফুজুর রহমানসহ স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, পুলিশ এবং অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

বিএসটিআই সূত্র জানায়, এ কোম্পানির লাইসেন্স এর মেয়াদ ২০২২ সালে শেষ হয়েছে। লাইসেন্স নবায়নের জন্য আবেদন করলে পণ্যটি টেস্টে অনুত্তীর্ণ হলে প্রত্যাখান পত্র প্রদান করা হয়। সাথে এ পণ্য বাজারজাত করণ নিষিদ্ধ করা হয়।

অভিযানে রাজা বল সাবানের কারখানা থেকে ৩৬০ কেজির ৫৪ টি সিলিকেট পূর্ণ ড্রাম, ১৮৬ কেজির ৩০টি পাম্প স্টিয়ারেটের ড্রাম, ১৮৬ কেজির ২৩০টি সোপ অয়েল পূর্ণ ড্রাম, ১৮৬ কেজির ৩৫ টি কোকোনাট অয়েল, ৩৫টি বর্জ্য বর্তি ড্রাম, প্রায় ৫০টি খালি ড্রাম, ৫০ কেজির ৬৯ বস্তা কস্টিক সোডা, ২৫ কেজির ৬টি সুগন্ধি, ১০ কেজির ৪ বস্তা সোপ পাউডার, ২টি পাল্লা, ১টি সেলাই মেশিন, ৭ ক্যারেটের ১৫০০ পিচ সাবান বানানোর ডাইস, ১৫০টি প্লাস্টিকের খালি বস্তা, ৩টি খালি মোড়ক পূর্ণ বস্তা, খোলা সাবান ২৫০ গ্রাম ওজনের প্রায় ২ হাজার পিচ, খোলা সাবান ৫০০গ্রাম ওজনের প্রায় ৩০০ পিচ, ১০ কেজি ওজনের ৫০টি সাবান বর্তি বস্তা, ২০ কেজি ওজনের ৪৩টি সাবান বর্তি বস্তা এবং ৩০ কেজি ওজনের ৩১টি সাবানের বস্তা জব্দ করা হয়।

এছাড়াও গোডাউন থেকে ২০ কেজি ওজনের আনুমানিক ৯০০টি সাবান বর্তি বস্তা, ৩০ কেজি ওজনের ২২০টি সাবান বর্তি বস্তা, প্রায় ৩০টি মোড়কের পূর্ণ বস্তা, ৩২০ টি খালি বালতি এবং একটি সেলাই মেশিন জব্দ করা হয়।

জব্দকৃত এসব পণ্য ও মালামাল বিএসটিআই চট্টগ্রামের ফিল্ড অফিসার মো. মাহফুজুর রহমান এবং স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান চৌধুরী শিপনের যৌথ জিম্মায় দেয়া হয়।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, ফ্যাক্টরিটি বিএসটিআইয়ের লাইসেন্স ছাড়া বিএসটিআইয়ের লোগো ব্যবহার করে সাবান উৎপাদন এবং বাজারজাত করে আসছিল। বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন আইন-২০১৮ এর ২৭ ধারায় হাজী এজাহার মিয়া এন্ড সন্স সোপ ফ্যাক্টরি (রাজা স্পেশাল বল সাবান)’র মালিক আমান উল্লাহ কে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয় এবং ১লক্ষ টাকা নগদ জরিমানা আদায় করা হয়। এছাড়াও আনুমানিক ১কোটি টাকার বেশি জিনিসপত্র জব্দ করা হয়েছে ফ্যাক্টরিটিতে।

আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও

সর্বশেষ