১৫ জুলাই ২০২৪

বাকলিয়ায় মসজিদে ৭ মাদক ব্যবসায়ীর ব্যাতিক্রমী আত্মসমর্পন

বাংলাধারা প্রতিবেদন »

বাকলিয়া থানা এলাকায় গত ২ মে থেকে টানা মাদক বিরোধী সাঁড়াসি অভিযানে ৮৪ জন মাদক ব্যবাসায়ীকে গ্রেফতার করে আদালতে সোর্পদ পুলিশ।

ইতোমধ্যে, গত শুক্রবার বাকলিয়া থানার ৩৮টি মসজিদে মাদক ব্যবসায়ীদের আত্মসমর্পনের জন্য বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নেজাম উদ্দীনের তিন শর্ত প্রচার করেছিলেন খতিব সাহেবেরা।

আহবানে সাড়া দিয়ে শুক্রবার (১৭) মে বাকলিয়ার বজ্রঘোনা এলাকার মদনী মসজিদে জুমার নামাজের আগে মুসল্লিদের উপস্থিতিতে ৭ জন মাদক ব্যবাসায়ী আত্মসমর্পন করে।

আত্মসমর্পনকারীরা হলেন,  মৃত বাচ্চু মিয়ার ছেলে মোঃ আবু বক্কর(৪৫), মৃত আবুল কাশেমের ছেলে মোঃ আব্দুল মাবুদ(৩৮), মৃত বজল আহাম্মদের ছেলে মোঃ শাহজাহান(৪৫), মৃত হাজী কবির আহাম্মদের ছেলে  মোঃ শামসু (৪০),মৃত হাজী ফারুক আহমদের ছেলে মির্জা এসকান্দর মির্জা(৫৬), আলী আহাম্মদের ছেলে ওছিউর রহমান এবং আব্দুর রহিমের ছেলে  মোঃ ইছাহাক(৫০)। তারা সবাই বজ্রঘোনা এলাকার আশেপাশের বাসিন্দা।  

(ওসি) মোহাম্মদ নেজাম উদ্দীন জানান, প্রথমে ৪ জন ইয়াবা ব্যবসায়ী স্ব-ইচ্ছায় আত্মসমর্পন করে। পরে আমি উপস্থিত মুসল্লিদের মধ্যে আর কোন মাদক ব্যবসায়ী থাকলে আত্মসমর্পনের আহবান জানালে মুসল্লিদের মধ্য থেকে আরো তিন ইয়াবা ব্যবসায়ী খুতবার আগে আত্মসমর্পন করে। তাদের সবারই একাধিক মামলা বিচারাধীন আছে।  

তিনি বলেন, তাদেরকে মসজিদে সবার সামনে আর কানদিন মাদক ব্যসায় জড়িত হবেনা এই মর্মি শপথ বাক্য পাঠ করানো হয়। পরে তারা একালাবাসীদের মাদক সেবন এবং ব্যবসা থেকে সরে আসার আহবান জানান।

বাংলাধারা/এফএস/এমআর

আরও পড়ুন