১৫ জুলাই ২০২৪

বিকেলে চীন যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

বাংলাধারা ডেস্ক »

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাঁচ দিনের সরকারি সফরে চীন যাচ্ছেন।

সোমবার (১ জুন) বিকেল ৫টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-১৭২০ বিশেষ ফ্লাইটে রওয়া হবেন। এ তথ্য জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং। স্থানীয় সময় মধ্য রাতে চীনের লিয়াওনিং প্রদেশের ডালিয়ান ঝোউশুইঝি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাবেন শেখ হাসিনা। সেখানে বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে সাংগ্রি-লা হোটেলে বিশ্রাম নেবেন তিনি।

সম্ভাব্য কর্মসূচি অনুযায়ী সফরের দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার (২ জুলাই) সকালে ডালিয়ান আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামের গ্রীষ্মকালীন বৈঠকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। স্থানীয় সময় বিকেলে শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামে প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী চেয়ারম্যান ক্লাউস সোয়াব। পরে ডালিয়ান আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘কোঅপারেশন ইন দ্য প্যাসিফিক রিম’ শীর্ষক প্যানেল আলোচনায় অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী।

বুধবার (৩ জুলাই) স্থানীয় সময় সকালে চীন সরকারের বিশেষ বিমানে ডালিয়ান থেকে বেইজিং যাবেন প্রধানমন্ত্রী। বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বেইজিংয়ে ডিয়াওইউতাই স্টেট গেস্ট হাউজে নেওয়া হবে তাকে। সফরকালে সেখানেই অবস্থান করবেন শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (৪ জুলাই) দুপুরে চীনের প্রধানমন্ত্রী কেছিয়াং-এর এর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করবেন শেখ হাসিনা। বৈঠকের পর দুই দেশের মধ্যে কয়েকটি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হতে পারে। দুপুরে চীনা প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ভোজে যোগ দেবেন শেখ হাসিনা।

এ দিন বিকেলে চীনের ব্যবসায়ী নেতাদের সঙ্গে গোলটেবিল বৈঠকে অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী। শুক্রবার (৫ জুলাই) বিকেলে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাতে চীনা প্রেসিডেন্টের দেওয়া নৈশভোজে অংশ নেবেন তিনি। শনিবার (৬ জুলাই) প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২৩ জুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন বলেছিলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চীন সফরে রোহিঙ্গা ইস্যু অগ্রাধিকারের তালিকায় থাকবে। সেই সাথে প্রাসঙ্গিকভাবে বিনিয়োগের বিষয়টি স্থান পাবে। ‘মিয়ানমারে অনেক বিনিয়োগ করছে চীন। তারা বাংলাদেশেও বিনিয়োগ করেছে। শান্তি ও শৃঙ্খলা না থাকলে এ বিনিয়োগ কোনো সুফল বয়ে আনবে না। আমরা এ কথাও চীনকে জানিয়ে দেব,’ বলেন তিনি।

বাংলাধারা/এফএস/এমআর/টিএম/বি

আরও পড়ুন