১৫ জুলাই ২০২৪

‘বৌদ্ধপূর্ণিমায়’ বাংলাদেশে আইএস’র হামলার আশংকা

বাংলাধারা প্রতিবেদক » 

১৮ মে বৌদ্ধ পূর্ণিমায় জামায়াত-উল-মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি) বা ইসলামিক স্টেট (আইএস) পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশে হামলা চালাতে পারে বলে সতর্কতা জারি করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা (আইবি)।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম জি নিউজের একটি প্রতিবেদনে ১১ মে এ তথ্য জানানো হয়েছে। আইবি’র রিপোর্টে এই সতর্কতার কথা জানা গেছে বলে দাবি করা হয়। ১৮ মে ভারত-বাংলাদেশে বৌদ্ধপূর্ণিমা পালন করবেন বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা।

ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার সতর্কবার্তায় বলা হয়েছে, ‘বাংলাদেশ অথবা পশ্চিমবঙ্গে নারী জঙ্গিদের সামনে রেখে নাশকতার ছককে বাস্তবায়িত করা হতে পারে। নির্দিষ্টভাবে বলা হয়েছে, বুদ্ধপূর্ণিমার দিন বৌদ্ধ মন্দিরে অথবা অন্য কোনো মন্দিরে ভক্ত সেজে ঢুকে হামলা চালানো হতে পারে। এমনকি নিরাপত্তারক্ষীদের নজর এড়াতে গর্ভবতী নারী সেজে (ফিদায়েঁ কায়দায়) পেটের মধ্যে বিস্ফোরক লুকিয়ে মন্দিরে ঢোকার মতো নতুন কৌশল জঙ্গিরা নিতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে।

জি-নিউজ জানিয়েছে, ‘আইবি রিপোর্টের ভিত্তিতে দুই বাংলার ধর্মীয় স্থানগুলোতে বিশেষত হিন্দু ও বৌদ্ধ মন্দিরগুলোতে এ হামলা হতে পারে। ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের পক্ষ থেকে ১০ মে শুক্রবার সন্ধ্যায় পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য পুলিস-প্রশাসনকে এ নিয়ে সতর্কবার্তা পাঠানো হয়েছে।

রাজ্য পুলিশের বরাত দিয়ে জি-নিউজ বলছে, ‘সতর্কবার্তা পেয়ে এরমধ্যেই পশ্চিমবঙ্গের হিন্দু ও বৌদ্ধ মন্দিরগুলোতে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে’। পশ্চিমবঙ্গ এবং কলকাতা পুলিশের দুই কর্মকর্তা সতর্কবার্তার সত্যতা স্বীকার করে জানিয়েছেন, ‘বুদ্ধপূর্ণিমায় কলকাতা-সহ রাজ্যের বিভিন্ন বৌদ্ধ মন্দিরে যেহেতু প্রচুর ভক্তের সমাগম হয়, তাই সেখানে নিরাপত্তা জোরদার করতে বলা হয়েছে। সুরক্ষা বাড়ানো হচ্ছে অন্যান্য মন্দিরেও।

হামলার আশংকার বিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের উপ-কমিশনার মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ বাংলাধারাকে বলেন, শ্রিলংকায় সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে আমরা সতর্কাবস্থায় আছি। জঙ্গি তৎপরতার উপর নজরদারির পাশাপাশি নিরপত্তাও জোরদার করা হয়েছে।

শহিদুল্লাহ বলেন, অব্যহত অভিযানে বাংলাদেশে জঙ্গিরা সক্ষমতা হারিয়েছে। তারপরও আমরা সব সময় সতর্ক আছি।

বাংলাধারা/এফএস/এমআর

আরও পড়ুন