২৫ এপ্রিল ২০২৪

মাদক মামলায় গ্রেপ্তার রাঙামাটি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জেল হাজতে

চোলাই মদসহ গ্রেপ্তার রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শাহ এমরান রোকনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার (২৪ জুলাই) দুপুরে রাঙামাটি চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তোলা হলে আদালতের বিচারক জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে আসামিকে জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দিয়েছেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গতকাল রোববার (২৩ জুলাই) রাত ৯টার দিকে চোলাই মদ নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে নিউ মার্কেট এলাকা থেকে বনরূপার দিকে যাওয়ার পথে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রোকনের ব্যাগ থেকে একটি মদের বোতল রাস্তায় পড়ে যায়। পরে এসআই সাইমা সুলতানা আসামি রোকনকে আটক করতে পারলেও আরেক আসামি শিবাশীষ পালিয়ে যায়। পরে রোকনের ব্যাগ থেকে ৩ লিটার চোলাই মদ উদ্ধার করে পুলিশ।

এজাহারে পুলিশের এই কর্মকর্তা দাবি করেছেন, রোকন বিক্রির উদ্দেশ্যে চোলাইমদ নিয়ে যাচ্ছিল। এদিকে, একই মামলায় শিবাশীষ আইচ নামে আরেকজন আসামি থাকলেও সে পলাতক রয়েছে বলেও এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

জানা গেছে, ঘটনার সময় দায়িত্বরত ও মামলার বাদী পুলিশ উপপরিদর্শক (এসআই) সাইমা সুলতানার সঙ্গে বাকবিতন্ডায় জড়ান সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শাহ এমরান রোকন। এর আগেও, দরপত্র ছিনতাই মামলায় জেল খেটেছিল সাবেক এই ছাত্রলীগ নেতা।

রোকন রাঙামাটি জেলা শহরের চম্পকনগর এলাকার মৃত সেলিম মিয়ার ছেলে। সে ২০১০ সাল থেকে ২০১৫ পর্যন্ত রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। সে বর্তমানে বাংলাদেশ পরিবার পরিকল্পনা সমাতি (এফপিএবি) রাঙামাটি শাখারও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে রয়েছেন।

রাঙামাটি কোতোয়ালি থানার ওসি আরিফুল আমিন বলেন, গ্রেপ্তার রোকনকে মাদক মামলায় আদালতে পাঠানো হয়েছে। রাঙামাটি চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত আসামির জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

আরও পড়ুন