২০ জুন ২০২৪

মুক্তিযুদ্ধের ৩০ লাখ শহিদকে চিহ্নিত করা হবে : সংসদে প্রধানমন্ত্রী

বাংলাধারা প্রতিবেদন » 

একাত্তরে মহান মুক্তিযুদ্ধের ৩০ লাখ শহিদকে চিহ্নিত করার পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশ নেওয়া বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তথ্য সংগ্রহ করে ডাটাবেজ তৈরি করে তা ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছে।

বুধবার (১৯ জুন) বিকেলে একাদশ জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে টেবিলে উত্থাপিত প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্নোত্তর পর্বে লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

সরকার দলীয় সংসদ সদস্য অসীম কুমার উকিলের এক প্রশ্নের জবাবে শেখ হাসিনা জানান, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রকাশিত তালিকা থেকে যদি কোনো মুক্তিযোদ্ধা বাদ পড়ে থাকেন, তাদের শনাক্ত করে ওই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা যাবে।

সংসদ নেতা জানান, ওই তালিকার অংশ হিসেবে বর্তমানে মোট ৫ হাজার ৭৯৫ জন শহিদ বীর মুক্তিযোদ্ধার নাম, ঠিকানা সম্বলিত পূর্ণাঙ্গ তালিকা তথ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। এর মধ্যে গেজেটভুক্ত বেসামরিক শহিদ ২ হাজার ৯২২ জন, সশস্ত্র বাহিনীর সদস্য ১ হাজার ৬২৮ জন, বিজিবির ৮৩২ জন এবং গেজেটভুক্ত শহীদ পুলিশ ৪২৪ জন।

শেখ হাসিনা বলেন, একাত্তরে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তাদের এ দেশীয় সহযোগীদের হাতে নিহত জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান শহিদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতি বিজড়িত গণকবর সংরক্ষণ করার বিষয়ে আমাদের সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছে। সারাদেশে বধ্যভূমি ও গণকবর শনাক্ত করতে ব্যাপক প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে। ৪৪২ কোটি ৪০ লাখ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ের গৃহীত একটি প্রকল্পের মাধ্যমে সারাদেশে ২৮১টি বধ্যভূমি সংরক্ষণ ও উন্নয়ন করা হবে।

বাংলাধারা/এফএস/এমআর/টিএম

আরও পড়ুন