২০ মে ২০২৪

মিয়ানমারে সংঘাত

যুদ্ধ ক্ষেত্র থেকে ফের পালিয়ে টেকনাফে এলো বিজিপির ৯ সদস্য

মিয়ানমারে বিদ্রোহী সশস্ত্র গোষ্ঠী আরাকান আর্মির সঙ্গে সংঘাতে টিকতে না পেরে প্রাণ বাঁচাতে দেশটির সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপির আরও ৯ সদস্য বাংলাদেশে ঢুকে আশ্রয় নিয়েছে। পরে তাদেরকে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) হেফাজতে নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে একটি সূত্র।

রোববার (১৪ এপ্রিল) সকালে কক্সবাজারের টেকনাফের হোয়াইক্যং সীমান্তের খারাংখালি পয়েন্ট থেকে ৩ জন ঝিমংখালি পয়েন্ট দিয়ে ৬ জন ঢুকে পড়ে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

সূত্র জানিয়েছে, গত কয়েকমাস ধরে মিয়ানমারের রাখাইনে চলমান সংঘাত দিনের পর দিন বেড়েই চলছে। টানা সপ্তাহ জুড়ে নতুন করে থেমে থেমে ওপার থেকে বিস্ফোরণের বিকট শব্দ টেকনাফের এপারে ভেসে আসছিল।

এমন পরিস্থিতিতে রবিবার (১৪ এপ্রিল) সকালে কক্সবাজারের টেকনাফের হোয়াইক্যং খারাংখালি ও ঝিমংখালি পয়েন্ট দিয়ে মিয়ানমারের সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর (বিজিপির) ৯ সদস্য ঢুকেছে। পরে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশে (বিজিবি’র) সদস্যরা নিরস্ত্র করে তাদের হেফাজতে নেন।

হোয়াইক্যং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ নুর আহমেদ আনোয়ারী বলেন, রবিবার সকালে মিয়ানমারের সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর ৯ জন সদস্য নিজ দেশ থেকে পালিয়ে প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশের টেকনাফের হোয়াইক্যং খারাংখালি ও ঝিমংখালি সীমান্তে ঢুকেছে। পরে দায়িত্বরত বিজিবির সদস্যরা তাদের নিরস্ত্র করে, হেফাজতে নেন।

তবে, এ বিষয়ে বিজিবির দায়িত্বশীল কোন সূত্র মুখ খুলতে রাজি হয়নি।

উল্লেখ্য, এর আগেও মিয়ানমারের রাখাইনের আরাকান আর্মি (এএ) ও দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে চলা সংঘাত থেকে টেকনাফ সীমান্তে ১২৯ জন বিজিপি’র সদস্য আশ্রয় নিয়েছিল। পরবর্তীতে তাদেরকে মিয়ানমারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও

সর্বশেষ