২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

লামায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ৪শ’ ফুট গভীর খাদে ট্রাক , আহত ১

লামা প্রতিনিধি »

লামায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মালবাহী একটি ট্রাক পাহাড়ের গভীর খাদে পড়ে গেছে। এসময় ট্রাকের ড্রাইভার মো. লিটন (৪৫) গুরুতর আহত হয়।

শনিবার (০১ জুন) সকাল সাড়ে ৯টায় লামা-চকরিয়া সড়কের মিরিঞ্জা পাহাড়ের মরা বাঙ্গাইলার টেকে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও সেনাবাহিনী উদ্ধার কাজে অংশ নেয়। লামা ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা স্থানীয়দের সহায়তায় আহত চালককে দ্রুত উদ্ধার করে লামা হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে তার অবস্থা আশংকাজনক দেখে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়। সে নোয়াখালী জেলার কবিরহাট পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের পূর্ব ফতেহপুর গ্রামের মৃত মমিন আলীর ছেলে।

ট্রাকের হেলপার মো. শিপন (১৭) আগে থেকে গাড়ি থেকে লাফিয়ে পড়ায় তার তেমন কোন আঘাত লাগেনি। হেলপার শিপন বলেন, আমরা হার্ডবোড নিয়ে চট্টগ্রাম হতে আলীকদম বোর্ড ফ্যাক্টরীতে যাচ্ছিলাম। পথে মিরিঞ্জা এলাকায় আসলে পাহাড় নামার সময় ট্রাকটি ব্রেকফেল হয়। আমি দ্রুত গাড়ি থেকে নেমে জাম দিয়ে গতিরোধ করতে চেষ্টা করি। কিন্তু মালবোঝাই লোড গাড়ি হওয়ায় ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়নি।

পরে ট্রাকটি পাহাড়ের গভীর খাদে পড়ে যায়। গাড়িটি দুমড়ে মুছড়ে খন্ড বিখন্ড হয়ে গেছে। আহত ড্রাইভারকে ক্ষতিগ্রস্থ গাড়ির মধ্যে থেকে উদ্ধার করা হয়। ট্রাকটির নাম্বার চট্টমেট্রো-ট ০৫-০৩৪১। গাড়ির মালিক খাদিজা বেগম ট্রাক ড্রাইভার মো. লিটনের স্ত্রী।

লামা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের জুনিয়র লিডার নয়ন জিৎ চাকমা বলেন, শুনামাত্র আমরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হই। আহত ড্রাইভারকে উদ্ধার করে প্রথমে লামা হাসপাতালে নিয়ে আসি এবং পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য এ্যাম্বুলেন্সে করে চট্টগ্রাম পাঠানোর ব্যবস্থা করি। ট্রাকটি কমপক্ষে পাহাড়ে ৪শত ফুট গভীর খাদে পড়ে গেছে।

দুর্ঘটনাস্থলে প্রথমে লামা ট্রাফিক পুলিশের একটি টিম উপস্থিত হয় এবং পরে লামা থানা পুলিশের আরেকটি টিম সেখানে যায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লামা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক খালেদ মোশারফ বলেন, খুবই মারাত্মকভাবে ট্রাকটি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

বাংলাধারা/এফএস/এমআর

আরও পড়ুন