২০ মে ২০২৪

শোকজ খেলো মিরসরাই উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক

দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে মিরসরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক একে এম জাহাঙ্গীর ভূঁইয়াকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে।

বুধবার (১৫ মে) বাংলাদেশ আওয়ামিলীগের দলীয় অফিশিয়াল প্যাডে দলটির দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ নোটিশ দেওয়া হয়।

নোটিশে বলা হয়, ‘সম্প্রতি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যামে প্রচারিত আপনার বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামিলীগের ভাবমূর্তি ক্ষূণ্ন হয়েছে এভল তা সংগঠনকর রীতিনীতি ও আদর্শ পরিপন্থী। শিষ্টাচার বহির্ভূতভাবে প্রদত্ত আপনার বক্তব্য সংগঠনের শৃঙ্খলাবিরোধী এবং বাংলাদেশ আওয়ামিলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ।’

‘এমতাবস্থায়, আপনার বিরুদ্ধে কেনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে না, তার ব্যাখ্যাসহ আপনার লিখিত জবাব আগামী ১৫ (পনের) দিনের মধ্যে বাংলাদেশ আওয়ামিলীগ-এর মাননীয় সভাপতি বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা এমপির রাজনৈতিক কার্যলয়ে প্রেরণের জন্য সাংগঠনিক নির্দেশক্রমে অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।’

এর আগে গত সোমবার (২৯ এপ্রিল) বিকেলে মিরসরাই উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শেখ মোহাম্মদ আতাউর রহমানের ঘোড়া মার্কার সমর্থনে উপজেলার বড়তাকিয়া ইভা কমিউনিটি সেন্টার প্রাঙ্গণে কর্মী সমাবেশে মিরসরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একেএম জাহাঙ্গীর ভূঁইয়া বলেন, ‘গত ৭ জানুয়ারি জননেত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থী, প্রিয় নেতা ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের সুযোগ্য সন্তান মাহবুব উর রহমান রুহেলকে জেতানোর জন্য আমরা অনেক অপকর্ম করেছি। আগামী ৮ তারিখ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কোনো অপকর্ম ছাড়া ভোট কেন্দ্র খোলা রাখবো।’ এমন বক্তব্যের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে পুরো উপজেলায় তোলপাড় শুরু হয়।

জানতে চাইলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একেএম জাহাঙ্গীর ভূঁইয়া বলেন, গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে একটি অনুষ্ঠানে অনাকাঙ্ক্ষিত একটি বক্তব্যের জন্য বাংলাদেশ আওয়ামিলীগের কেন্দ্র থেকে ১৫ দিনের মধ্যে আমাকে একটি কারণ দর্শানোর নোটিশ দিতে বলেছেন। আমি খুব শীঘ্রই কেন্দ্রের কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাব দিবো।

আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও

সর্বশেষ