২২ মে ২০২৪

সাকিব ভক্তদের জন্য দু:সংবাদ

বাংলাধারা প্রতিবেদক »

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের এই আসরে বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান এক অনবদ্য নাম। গতকাল আফগানিস্তানের সঙ্গে অর্ধশতকের মধ্য দিয়ে বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রানের মালিক হিসেবে পুনরায় জায়গা ফেরত পান সাকিব আল হাসান। কিন্তু আজ ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার খেলায় সাকিবের সে জায়গাটি কেড়ে নেয় অস্ট্রেলিয়ার ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার এবং এ্যারন ফিঞ্চ।

বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৬৬ রানের ইনিংস খেলে শীর্ষ ব্যাটসম্যানদের তালিকায় উঠে আসে ডেভিড ওয়ার্নার। আজ আবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অর্ধশতক রান তুলে সাকিবকে পেছনে ফেলে এক নম্বর জায়গায় উঠে এসেছেন ওয়ার্নার। ব্যক্তিগত ৫৩ রানে আউট হওয়ার আগে ওয়ার্নারের সংগ্রহ ৫০০ রান।

শুধু ডেভিড ওয়ার্নারই নয় সাকিবকে পেছনে ফেলেছেন অস্ট্রেলিয়ার আরেক ওপেনার ও অধিনায়ক এ্যারণ ফিঞ্চ। আজ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে নেমে সাকিব আল হাসানের করা ৪৭৬ রান টপকে গেছেন এ্যারন ফিঞ্চ। আজ ফিঞ্চের সেঞ্চুরি করাতে তার মোট রান হয়েছে ৪৯৪ রান।

যদিও এ্যারণ ফিঞ্চ এবং ডেভিড ওয়ার্নার ৭টি ম্যাচ খেলেছেন, অন্যদিকে সাকিব খেলেছেন ৬টি ম্যাচ। বিশ্বকাপের এই আসরে সেরা ব্যাটসম্যানদের তালিকায় সাকিবের বর্তমান অবস্থান তৃতীয় স্থানে। এদিকে এতো রেকর্ডের মাঝে নতুন আরেকটি উচ্চতায় পৌছে গেছেন বিশ্বের এক নম্বর অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

গতকাল আফগানিস্তানের সঙ্গে অর্ধশতকের পর ওয়ানডে এবং টেস্ট ম্যাচে সাকিবের রানের পরিমাণ ১০ হাজার। এ পর্যন্ত সাকিব আল হাসান ২০৪টি একদিনের আর্ন্তজাতিক ম্যাচ খেলে রান করেছেন ৬ হাজার ১৯৩।

অন্যদিকে ৫৫টি টেস্ট ম্যাচ খেলে সাকিব করেছেন ৩ হাজার ৮০৭ রান। এই দুই ফরম্যাটে সাকিবের রানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার। তাই সাকিব এখন ১০ হাজারি তালিকার সদস্য। এদিকে বিশ্বের সেরা এই অলরাউন্ডার ওয়ানডে ম্যাচে ২৫৯টি এবং টেস্ট ম্যাচে ২০৫টি উইকেট নিয়েছেন। অর্থাৎ ওয়ানডে এবং টেস্ট মিলিয়ে সাকিবের উইকেটের পরিমাণ ৪৬৪টি।

বাংলাধারা/এফএস/এমআর/বি

আরও পড়ুন