১৫ জুলাই ২০২৪

সাতক্ষীরায় বিএসএফের নির্যাতনে বাংলাদেশি যুবকের মৃত্যুর অভিযোগ

বাংলাধারা ডেস্ক »

সাতক্ষীরার কুশখালী সীমান্তের বিপরীতে ভারতের দুদলিতে বিএসফের নির্যাতনে বাংলাদেশি এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার ( ১০ মে ) দিবাগত রাতে নির্যাতনের পর ওই যুবককে সাতক্ষীরার কুশখালি সীমান্তের ছয়ঘরিয়া এলাকায় ফেলে যায় বিএসএফ। পরে তাকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহতের যুবক সাতক্ষীরার কালিয়ানী ছয়ঘরিয়া গ্রামের আব্দুল আজিজ মোল্লার ছেলে কবিরুল হোসেন মোল্লা (৩২)।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, নিহতের শরীরে নির্যাতনের চিহ্ন পাওয়া গেছে। মুখে পেট্রোল ঢেলে দেওয়ার বিষয়টি মেডিকেল রিপোর্ট ছাড়া নিশ্চিত করে বলা সম্ভব নয়। কবিরুলের মরদেহের ময়নাতদন্ত করা হবে।

সাতক্ষীরা ৩৩ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল গোলাম মহিউদ্দিন খন্দকার বলেন, “সীমান্তে নির্যাতনে একজন মারা গেছেন। তবে অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বে না বিএসএফের নির্যাতনে মারা গেছেন, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

কবিরুলের ভাই রবিউল ইসলাম মোল্লা জানান, গতকাল সন্ধ্যায় কয়েকজন ব্যক্তির সঙ্গে ভারতীয় চা পাতা আনতে সীমান্তে যান কবিরুল। এ সময় বিএসএফ সদস্যরা তাদের তাড়া করেন। অন্যরা পালাতে পারলেও তার ভাইকে বিএসএফ সদস্যরা আটক করেন।

রবিউলের অভিযোগ, কবিরুলকে মারধর করে মুখে ও পায়ুপথে পেট্রল ঠেলে দেন বিএসএফ সদস্যরা। এ ঘটনায় কবিরুল গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে বাংলাদেশ সীমান্তে ফেলে রেখে যাওয়া হয়। পরে তাকেউদ্ধার করে রাত ১২ টার দিকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বাংলাধারা/এফএস/এমআর/এসবি

আরও পড়ুন