২৬ মে ২০২৪

হাটহাজারী পৌরসভার দোকান বরাদ্দের নামে প্রতারণা, প্রশাসনের সতর্কতা

বাংলাধারা প্রতিবেদন »

হাটহাজারী থানার সামনে থেকে কাচারী সড়ক হয়ে কামাল পাড়া এলাকা পর্যন্ত খালের উপর দিয়ে পানি চলাচলের সুবিধার জন্য তৈরী করা হয়েছে বক্স ক্যানেল। এই বক্স ক্যানেলের উপর পৌর কর্তৃপক্ষের দোকান বরাদ্দের কোন পরিকল্পনা না থাকলেও একটি চক্র দোকান বরাদ্দ দেয়ার নামে বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে প্রতারণা করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগকারীরা জানায়, হাটহাজারী থানার সামনে থেকে কাচারি সড়কের কালভার্ট পর্যন্ত মোট ১১৭ টি দোকান বরাদ্দ দেয়া হবে বলে জানায় প্রতারক চক্র। প্রতিটি দোকানের মূল্য ধরা হয়েছে আড়াই লক্ষ টাকা।

প্রতারনার শিকার শহিদুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি অভিযোগ করে বলেন, আমার কাছ থেকে ২টি দোকান বরাদ্দের কথা বলে হাতিয়ে নেয়া হয়েছে ২ লক্ষ টাকা। পৌরসভা হিসাব রক্ষন কর্মকর্তার জাল স্বাক্ষর সম্বলিত একটি চুক্তিপত্র দেয়া হয় আমাকে। চুক্তিপত্রে বলা হয় শহিদুল ইসলাম থেকে নেয়া ২ লক্ষ টাকা সোনালী ব্যাংকের একটি হিসাব নাম্বারের বিপরীতে পে অর্ডারের মাধ্যমে জমা নেয়া হয়েছে।

সোনালী ব্যাংকে টাকা জমা দেয়ার বিষয়টি সঠিক নয় বলে সোনালী ব্যাংকের হাটহাজারী শাখার কর্মকর্তা মিন্টু রাম দাশ লিখিত ভাবে জানিয়েছেন বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন বাংলাধারাকে বলেন, এখানে তো কোন দোকান নেই, আছে শুধু ড্রেন আর স্ল্যাব। দোকান বরাদ্দের প্রশ্ন আসছে কেন? আর এই ড্রেনের উপর দোকান তৈরীর কোন পরিকল্পনাও আপাতত নেই।

তিনি পৌরসভার দোকান বরাদ্দের নামে টাকা হাতিয়ে নেয়ার ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। আর যারা টাকা দিয়ে ফেলেছেন তাদের থানায় মামলা দায়ের করার পরামর্শ দিয়েছেন।

বাংলাধারা/এফএস/এমআর/টিএম

আরও পড়ুন