২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

৩০ ঘন্টা পর সচল হলো চট্টগ্রাম বন্দর

বাংলাধারা প্রতিবেদন »

প্রায় ৩০ ঘন্টা অচল থাকার পর এবার সচল হয়েছে চট্টগ্রাম বন্দরের ইয়ার্ড ও টার্মিনালে কার্গো ও কনটেইনার হ্যান্ডলিং কার্যক্রম। জাহাজশূন্য জেটিতে শনিবার (৪ মে) সন্ধ্যায় জাহাজ ভিড়ানো হতে পারে বলে জানা যায়।

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিব মো. ওমর ফারুক বাংলাধারাকে জানান, ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী‘র প্রভাব কমে গেলে আবহাওয়া অধিদফতর ৬ নম্বর থেকে নামিয়ে চট্টগ্রাম বন্দরকে ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলেছে। তাই স্বাভাবিকভাবেই বন্দরের সকল কার্যক্রম স্বাভাবিক করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ইক্যুইপমেন্ট মুভমেন্ট শুরু হয়েছে ইয়ার্ড ও টার্মিনালে। আমদানি পণ্য সরবরাহ করা হচ্ছে।

সন্ধ্যায় জেটিতে জাহাজ ভিড়ানো হতে পারে। জাহাজ ভিড়লেই লোড আনলোড শুরু হবে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ঘূর্ণিঝড় ফণীর কারণে আবহাওয়া অধিদফতর চট্টগ্রাম বন্দরকে ৬ নম্বর সংকেত দেখাতে বলায় কর্তৃপক্ষ অ্যালার্ট-৩ জারি করে। ফলে বন্দরের সব জেটি থেকে জাহাজগুলো বহির্নোঙরে, বন্দর চ্যানেলের সব নৌযান শাহ আমানত সেতুর পূর্বপাশে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। একে একে বন্দরের হ্যান্ডলিং ইক্যুইপমেন্টগুলো নিরাপত্তার জন্য অ্যাংকর করা হয়। ফলে পণ্য খালাসও বন্ধ হয়ে যায়। এর আগে বৈরী আবহাওয়ায় সাগর উত্তাল থাকায় বহির্নোঙরে বড় জাহাজ থেকে খোলা পণ্য ছোট জাহাজে খালাস কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়।

বাংলাধারা/এফএস/এমআর/টিএম

আরও পড়ুন