২৫ এপ্রিল ২০২৪

মতবিনিময় সভায় সিআইডি প্রধান মোহাম্মদ আলী মিয়া

‘সাইবারক্রাইম, মানবপাচার, স্বর্ণ-চোরাচালান ও মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চালাচ্ছে সিআইডি’

বাংলাধারা প্রতিবেদন: ‘ভিশন-২০৪১’ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আধুনিক প্রশিক্ষণ ও লজিস্টিকস সরবরাহ জোরদার করার আহ্বান জানিয়েছেন অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) প্রধান অতিরিক্ত আইজিপি মোহাম্মদ আলী মিয়া।

রোববার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর মালিবাগে সিআইডি সদর দফতরের কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান। এসময় সিআইডির বিভিন্ন ইউনিটের কার্যক্রম নিয়ে অডিও ভিজ্যুয়াল প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়।


সভায় সিআইডি প্রধান বলেন, সাইবার ক্রাইম, ফিন্যান্সিয়াল ক্রাইম, র্স্বণ-চোরাচালান, মানবপাচার ও মাদকের বিরুদ্ধে সিআইডির অভিযান অব্যাহত আছে।

অনুকূল বিনিয়োগ পরিবেশের জন্য অনুষ্ঠিত সভায় সিআইডিকে ধন্যবাদ জানিয়ে সালমান এফ রহমান বলেন, একটি দেশের ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার এবং বিদেশি বিনিয়োগ নির্ভর করে সে দেশের অনুকূল পরিবেশ এবং ‘রুল অব ল’র বাস্তবায়নের ওপর। অনুকূল পরিবেশ বজায় রাখতে সিআইডির চলমান কর্মকাণ্ড প্রশংসার দাবি রাখে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সালমান এফ রহমান বলেন, দেশের আইনশৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা বজায় রাখতে সিআইডি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

সভাপতির বক্তব্যে সিআইডি প্রধান মোহাম্মদ আলী মিয়া বলেন, স্মার্ট পুলিশ বিনির্মাণে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ ও কর্মশালার মাধ্যমে বাংলাদেশ পুলিশ সদস্যদের পেশাদারি দক্ষতা বাড়াতে সিআইডি অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে।

তিনি ‘ভিশন-২০৪১’ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আধুনিক প্রশিক্ষণ ও লজিস্টিকস সরবরাহের ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীর শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টার কাছে সহযোগিতা কামনা করেন।সিআইডি প্রধান বলেন, বাংলাদেশে সিআইডি একমাত্র প্রতিষ্ঠান যাদের কার্যক্রম মাদকের খুচরা বিক্রেতা, গ্রহিতা ও বাহকের গ্রেপ্তারের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয় বরং গডফাদারদের শনাক্ত করে সম্পৃক্ত অপরাধে মানিলন্ডারিং আইনে মামলা ও তাদের অবৈধ সম্পদ ক্রোক করছে।

সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) প্রধান অতিরিক্ত আইজিপি মো. মনিরুল ইসলাম। এছাড়াও ডিআইজি, অতি. ডিআইজি, বিশেষ পুলিশ সুপারসহ সিআইডির বিভিন্ন পদমর্যাদার সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন